বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯
logo
সৈয়দ হককে রাষ্ট্রপতির শেষ শ্রদ্ধা
প্রকাশ : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৪৭:৫০
প্রিন্টঅ-অ+
দেশ ওয়েব

ঢাকা: সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেয়া হয়েছে।সর্বস্তরের মানুষ তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন।
বুধবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে সৈয়দ হকের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেয়া হয়। শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য সেখানে বেলা ১টা পর্যন্ত তাকে রাখা হবে।
বেলা ১১টা ২৪ মিনিটে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ শহীদ মিনারে কবিকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে উপস্থিত হন।
সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান প্রমুখ সৈয়দ হককে শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে উপস্থিত রয়েছেন।
এছাড়াও ফুল হাতে শহীদ মিনারের সামনে অপেক্ষা করছেন তার হাজারো ভক্ত-অনুরাগী।
শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ১১টা ২৯ মিনিটে রাষ্ট্রপতির শহীদ মিনার ত্যাগ করেন। এরপর সর্ব সাধারণকে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য সুযোগ দেয়া হয়।
এর আগে তেজগাঁও চ্যানেল আই’র প্রাঙ্গণে সৈয়দ হকের প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সেখান থেকে নেয়া পৌনে ১১টায় বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে নেয়া হয় তার মরদেহ।
এরপর দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে তার মরদেহ হেলিকপ্টারে করে গ্রামের বাড়ি কুড়িগ্রামে নেয়া হবে। সেখানে কুড়িগ্রাম কলেজের পাশেই সব্যসাচী এ লেখককে দাফন করা হবে।
মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টার পর ইউনাইটেড হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সবচেয়ে কম বয়সে বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক।
১৯৩৫ সালে কুড়িগ্রামে জন্ম নেয়া সৈয়দ হককে কবিতা, উপন্যাস, নাটক, ছোটগল্প তথা সাহিত্যের সব শাখায় সাবলীল পদচারণার জন্য ‘সব্যসাচী লেখক’ বলা হয়। তিনি পেয়েছেন স্বাধীনতা পুরস্কার ও একুশে পদকসহ অসংখ্য পুরস্কার।

দেশ এর আরো খবর