বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০
logo
আসছে প্রচণ্ড গরম, হতে পারে ঘূর্ণিঝড়!
প্রকাশ : ০৪ এপ্রিল, ২০১৬ ১৬:১৯:৪১
প্রিন্টঅ-অ+
দেশ ওয়েব

ঢাকা:সারা দেশে গত মার্চ মাসে স্বাভাবিকের চেয়ে ৪৫ ভাগ বেশি বৃষ্টি হয়েছে। সঙ্গে ঝড়ও ছিল। ঝড়-বৃষ্টি দুই-ই থাকতে পারে এপ্রিল মাসজুড়ে। এ মাসের মাঝামাঝি সময়ে বাংলাদেশের উপকূলের দিকে ঘূর্ণিঝড়ও ধেয়ে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। একই সঙ্গে পড়তে পারে প্রচণ্ড গরম।
গতকাল রোববার আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষজ্ঞ কমিটির বৈঠকে এই পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের ওয়েব সাইটে প্রকাশিত এই পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, মার্চ মাসে সিলেট বিভাগে স্বাভাবিক বৃষ্টি হয়েছে। তবে বরিশাল বিভাগে স্বাভাবিকের চাইতে ৩৫ দশমিক ৬ মিলিমিটার বৃষ্টি কম হয়েছে। কিন্তু ঢাকা বিভাগে স্বাভাবিকের চাইতে ৪৮ দশমিক ৪, চট্টগ্রামে ৪৮ দশমিক ১, রাজশাহীতে ১৫৭ দশমিক ৫, রংপুরে ৩৭৩ দশমিক ৯ ও খুলনা বিভাগে ২৬ মিলিমিটার বেশি বৃষ্টি হয়েছে।
বৃষ্টির সঙ্গে গরম বেশি ছিল। মার্চ মাসে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি ছিল।
ঝড়-বৃষ্টির কারণ সম্পর্কে বলা হয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের সঙ্গে পূবালী বায়ুপ্রবাহের সংযোগ ঘটায় মার্চ মাসের তৃতীয় ও চতুর্থ সপ্তাহে রংপুর, রাজশাহী বিভাগসহ অনেক স্থানে বজ্রসহ ভারী বৃষ্টি হয়েছে।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামসুদ্দিন আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, এপ্রিল মাস ঝড়-বৃষ্টির সময়। তাই এ মাসে ঝড়-বৃষ্টির দাপট থাকবে।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এপ্রিলে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। এ মাসে প্রায় ১৬ দিন সিলেট বিভাগে বৃষ্টি হতে পারে। এ কয়দিনে ৩০০ থেকে ৩৭০ মিলিমিটার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ঢাকা বিভাগে আট থেকে ১০ দিনে ১৪০ থেকে ১৮০ মিলিমিটার বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া বঙ্গোপসাগরে এক-দুটি নিম্নচাপ সৃষ্টি পারে। এর মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।
বৃষ্টির দাপট কম থাকবে রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগে। উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠতে পারে।
এ ছাড়া মৃদু ও মাঝারি মাত্রার তাপপ্রবাহের কারণে এসব এলাকায় তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি থেকে ৪০ ডিগ্রির মধ্যে ওঠা-নামা করতে পারে।
ঝড়-বৃষ্টির কারণে অবশ্য নদ-নদীর পানি প্রবাহ স্বাভাবিক থাকবে। তবে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে পাহাড়ি ঢলের কারণে আকস্মিক বন্যার দেখা দিতে পারে।
কয়েক দিনের ঝড়-বৃষ্টিতে তাপমাত্রা কমে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় শ্রীমঙ্গলে সব চাইতে বেশি ১৫৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া রাজধানী ৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে রাজধানী ঢাকায়।
 

দেশ এর আরো খবর