সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯
logo
ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে সুজিত রায় নন্দী
প্রকাশ : ০১ এপ্রিল, ২০১৭ ১০:২৪:০১
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব
চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর উপজেলার ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে বার্ষিক মিলাদ ও দোয়া গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে এগারটায় কলেজ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপ্রধানে বক্তব্য রাখেন কলেজের প্রতিষ্ঠাতা, সভাপতি এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী। পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ ড. মোঃ হাসান খান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এবিএম শাহআলম।


সহকারী অধ্যাপক মহিন উদ্দিনের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন ফরক্কাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুহুল আমিন হাওলাদার, অভিভাবক প্রতিনিধি মাওলানা কবির আহম্মেদ ওসমানী। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আল আমীন, তামান্না ওসমানী শাফা ও মরিয়ম আক্তার সালমা। অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন মানবিক বিভাগের পরীক্ষার্থী মোঃ রাশেদ হোসেন, হামদ পরিবেশন করেন বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী ইয়াসমীন আক্তার। আলোচনা পর্ব শেষে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন ফরক্কাবাদ ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ফকরুল ইসলাম। এ বছর এ কলেজ থেকে তিনশত দুই জন পরীক্ষার্থী এইচএসসি পরীক্ষা দিবে। অনুষ্ঠানে বিদায়ী ও বর্তমান ছাত্র ছাত্রী ছাড়াও শিক্ষকমন্ডলী, অভিভাবক এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।


সুজিত রায় নন্দী তাঁর বক্তব্যে বলেন জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারে আছেন বলে সেই অধিকারে আমাদের এই কলেজটি পাঁচ বছর আগে ইন্টারমিডিয়েট ও ডিগ্রি পরীক্ষার সেন্টার পেয়েছি। এখানে অনার্স কোর্স চালু হয়েছে। এবছরই আরও পাঁচটি বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু হবে। ভবিষ্যতে ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজ মাস্টার্স কোর্সে রূপান্তরিত করা হবে। এ এলাকায় একটি গালর্স হাইস্কুল প্রতিষ্ঠা করা হবে। তিনি তার এলাকার সকল উন্নয়নমূলক কাজের জন্য ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর, রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি ও মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপির প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সুজিত রায় নন্দী আরও বলেন, এলাকাবাসী চাইলে ফরাক্কাবাদে মেয়েদের জন্য একটি গার্লস হাই স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হবে। জাতীয় প্রেক্ষাপট প্রসঙ্গে তিনি বলেন সারাবিশ্বের অভিশাপ জঙ্গিবাদ। মানুষ হত্যা কোন ধর্মেই সমর্থন করে না। প্রত্যেক ধর্মেই শান্তি এবং ন্যায়ের কথা বলা আছে। আজকে জঙ্গিবাদ মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। সবাইকে সজাগ এবং জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। তিনি বলেন বাঙালি জাতি বীরের জাতি। তারা নয় মাস যুদ্ধ করে ত্রিশ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে। সেই বীরের জাতি কখনো কোনদিন অশুভ শক্তির কাছে মাথা নত করতে পারে না। তিনি শিক্ষক শিক্ষার্থী, অভিভাবক, মসজিদের ঈমাম, মাদ্রাসার প্রধানসহ সমাজের সকল স্তরের মানুষকে জঙ্গিবাদ, মাদক ও বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর