শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
logo
জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সম্মেলন কক্ষে মাসিক পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্সে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আতোয়ার রহমান
পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় ফৌজদারী মামলার নিষ্পত্তির হার আরও বৃদ্ধি করা হবে
প্রকাশ : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৮:৫৬:৫২
প্রিন্টঅ-অ+
পুলিশ প্রশাসনের আন্তরিকতা ও সহযোগিতা নিয়ে ফৌজদারী মামলা নিষ্পত্তির হার আরও বৃদ্ধি করা হবে। পুলিশ প্রশাসন সাক্ষী হাজির করার ক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা পালনের ফলে ফৌজদারী মামলার নিষ্পত্তির হার ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। কথাগুলো বলেছেন চাঁদপুরের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আতোয়ার রহমান। তিনি এ নিষ্পত্তির হার আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।


গতকাল শনিবার সকালে চাঁদপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত মাসিক পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্সে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, একটি ফৌজদারী মামলা বিচারের জন্যে প্রস্তুত করার ক্ষেত্রে পুলিশের যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে। মামলার অভিযোগপত্র অথবা চূড়ান্ত রিপোর্ট দাখিলের ক্ষেত্রে তিনি পুলিশ সদস্যদের আরও আন্তরিক হবার আহ্বান জানান। তিনি পুরাতন মামলা এবং মাদকের মামলায় সাক্ষী হাজির করার ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন। কনফারেন্সে উপস্থিত চাঁদপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার পিপিএম তাঁর বক্তব্যে বলেন, চাঁদপুরের পুলিশ প্রশাসন ও বিচার বিভাগের মধ্যে সহযোগিতা ও সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজমান রয়েছে। তিনি আরও বলেন, সাক্ষী হাজিরকরণ, তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করা এবং পরোয়ানা জারির ক্ষেত্রে পুলিশ আরও আন্তরিকভাবে কাজ করবে।


কনফারেন্সে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজীব কুমার বিশ্বাস, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ সাদী রহমান এবং জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কফিল উদ্দিন। উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর জেলার সকল থানার অফিসার ইনচার্জগণ। উল্লেখ্য যে, ক্রিমিনাল রুল্স এন্ড অর্ডারের বিধান অনুসারে প্রতি মাসেই এই কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর