শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
logo
ঢাকার বসুন্ধরা ইণ্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি-২ পুস্পগুচ্ছ সম্মেলন কেন্দ্রে
বর্ণিল আয়োজনে সাঙ্গ হলো ‘চাঁদপুর জেলা ব্র্যান্ডিং ফেস্টিভ্যাল’
প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি, ২০১৭ ১৬:৪৩:৩৬
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব
২৭ জানুয়ারি শুক্রবার ঢাকার কুড়িলে অবস্থিত বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি-২-এর পুষ্পগুচ্ছ সম্মেলন কেন্দ্রে চাঁদপুর জেলা ব্র্যান্ডিং ফ্যাস্টিভ্যাল অনুষ্ঠিত হয়। এ ফ্যাস্টিভ্যাল অনুষ্ঠানটি চাঁদপুরের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মিলন মেলায় পরিণত হয়। অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণ ও র্বণাঢ্য এ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মুখ্য সচিবসহ বেশ ক’জন সচিব, বর্তমান মন্ত্রী, সাবেক মন্ত্রী, এমপি, চাঁদপুর জেলার সাবেক জেলা প্রশাসক, সাবেক পুলিশ সুপারসহ অনেক ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা, দেশ খ্যাত মিডিয়া ব্যক্তিত্ব শিল্পী, রাজনীতিবিদ, খ্যাতিমান ব্যবসায়ী ও সুশীল সমাজের বিপুল সংখ্যক প্রতিনিধি অংশ নেন। সব মিলিয়ে পুরো অনুষ্ঠানটি যেনো চাঁদপুরবাসীর মিলন মেলায় পরিণত হয়। পুরো সম্মেলন কেন্দ্রটি বর্ণিল সাজে সুসজ্জিত করে এর ভেতরে-বাইরে ‘চাঁদপুর জেলা ব্র্যান্ডিং ফ্যাস্টিভ্যাল-২০১৭’ লেখা বড় সাইজের ব্যানার ছিলো চোখে পড়ার মতো। চাঁদপুরের বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে মনে হয়েছে যেনো অনুষ্ঠানটি চাঁদপুরেই হচ্ছে। অনুষ্ঠানে উচ্চ পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তাগণ তাঁদের বক্তব্যে ‘জেলা ব্র্যান্ডিংয়ে চাঁদপুর ইতিহাসে প্রথম স্থান করে নিলো’ কথাটি একাধিকবার উচ্চারণ করেছেন।
    মাগরিব নামাজের পর পরই শুরু হয় ফ্যাস্টিভ্যাল-এর আনুষ্ঠানিকতা। গুরুতে ফ্যাস্টিভ্যাল উদ্যাপন কমিটির চেয়ারম্যান ও চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আখন্দ সেলিম স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এরপর জেলা প্রশাসক মোঃ আবদুস সবুর মন্ডল চাঁদপুর জেলাকে ব্র্যান্ডিং করার প্রেক্ষাপট তুলে ধরেন। তিনি এ প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখেন এবং একই সাথে স্লাইডে চাঁদপুরের ইতিহাস-ঐতিহ্যের বিভিন্ন ডকুমেন্টারী উপস্থাপন করেন। দেশ খ্যাত মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, চাঁদপুরের কৃতী সন্তান চ্যানেল আই’র বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ চাঁদপুরের ইলিশের উপর চমৎকার একটি প্রেজেন্টেশন স্লাইডের মাধ্যমে উপস্থাপন করেন। তাঁর এই আকর্ষণীয় প্রেজেন্টেশন পুরো অনুষ্ঠানটিকে নাড়া দিয়েছে। সকলে মুহুর্মুহু করতালি দিয়ে তাঁর এ উপস্থাপনাটিকে স্বাগত জানিয়েছে। প্রায় বিশ মিটিটের উপস্থাপিত এ প্রেজেন্টেশনে শাইখ সিরাজ মেঘনায় জেলেদের ইলিশ আহরণের দৃশ্য, জীবন্ত ইলিশ হাতে নিয়ে বেশ কিছুক্ষণ চাঁদপুরের ইলিশের উপর বক্তব্য, ইলিশ সম্পদ রক্ষা করা, দেশের অর্থনীতিতে এই ইলিশ যে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারে সে তথ্য নির্ভর বক্তব্য, চাঁদপুর মাছঘাটে ইলিশের বিকিকিনির দৃশ্য, ইলিশের মৌসুমে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরা ও বেচা-কেনা, চাঁদপুরের হাজার হাজার মানুষ এই ইলিশ বাণিজ্যে স্বাবলম্বী হওয়া এবং গাঁয়ের বধূদের তরতাজা ইলিশ রান্নার দৃশ্যসহ আরো নানা চমকপ্রদ তথ্যসহ বক্তব্য তুলে ধরেন। তাঁর এই প্রেজেন্টেশনে বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, বাংলা একাডেমীর মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, নায়ক রাজ রাজ্জাক, ফারুক, নাট্যকার মামুনুর রশীদ, অভিনেতা তারিক আনাম, অভিনেত্রী মীম, অভিনেত্রী পূর্ণিমাসহ আরো জাতীয় তারকাদের ইলিশ নিয়ে তাঁদের কমেন্টস দেখানো হয়। তাঁদের প্রত্যেকেই বাংলাদেশেল ইলিশ বলতে চাঁদপুরের ইলিশের কথাই তুলে ধরেন। তাঁরা ইলিশের স্বাদ, আস্বাদন নিয়ে চাঁদপুরে আসার ইচ্ছার কথা জানান।
    অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের কৃতী সন্তান, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সাবেক পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপি। বিশেষ অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের কৃতী সন্তান, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম এমপি, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, বেসামরিক বিমান পরিবহনও পর্যাটন মন্ত্রণালয়ের সচিব এসএম গোলাম ফারুক, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের চাঁদপুরের কৃতী সন্তান মোঃ শাহ্ কামাল, মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) এনএম জিয়াউল আলম, চাঁদপুরের কৃতী সন্তান সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডঃ নূরজাহান বেগম মুক্তা ও চাঁদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গণি পাটওয়ারী। আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন একুশে পদকপ্রাপ্ত চিত্রশিল্পী চাঁদপুরের কৃতী সন্তান হাশেম খান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান। অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন বিভিন্ন ইলেক্টনিক মিডিয়ার উপস্থাপক চাঁদপুরের কৃতী সন্তান সফিউল আলম বাবু। সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়। তিনি আলোচনা পর্বে সভাপ্রধানের সমাপনী বক্তব্য রাখেন।
    চাঁদপুর চেম্বাদর অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির আয়োজনে এবং চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় এ জেলা ব্র্যান্ডিং ফেস্টিভ্যাল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ‘ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর’ নামে ১২০ পৃষ্ঠার একটি ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। দৃষ্টিনন্দন এবং খুবই মানসম্মত এই প্রকাশনাটিতে চাঁদপুরে ইলিশ ছাড়াও এ জেলার ইতিহাস-ঐতিহ্য, শত শত বছরের পুরানো ঐতিহ্য, নিদর্শন সম্বলিত তথ্যমূলক প্রতিবেদন এবং এ সবের নান্দনিক ছবি স্থান পায়। মোড়ক উন্মোচন করে অতিথিগণ। অনুষ্ঠানে চাঁদপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহারসহ চাঁদপুরের প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ, চাঁদপুরের সাবেক জেলা প্রশাসক ইসমাইল হোসেন, সাবেক পুলিশ সুপার আলমগীর রহমান, চাঁদপুরের কৃতী সন্তান ড্যাফোডিল গ্রুপের চেয়ারম্যান মোঃ সবুর খান, পাওয়ার সেলের ডিজি মোহাম্মদ হোসেন, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন নাহার আরো অনেক সরকারি কর্মকর্তা, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি, মৎসজীবী, জেলে প্রতিনিধিসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে মঞ্চ ব্যবস্থাপনার আহ্বায়ক ছিলেন সনাক চাঁদপুরের আহ্বায়ক ও দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠের প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাত। অনুষ্ঠানে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দসহ চাঁদপুরের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সাংবাদিক, বিভিন্ন ইলেক্টনিক মিডিয়া ও জাতীয় পত্রিকার সাংবাদিকগণও উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া চাঁদপুর প্রেসক্লাব, চাঁদপুর রোটারী ক্লাব, চেম্বার অব কমার্স, মৎসজীবী সমিতি, বিভিন্ন সাংবাদিক-সংগঠন, রোটার‌্যাক্ট ক্লাব, সেন্টাল রোটার‌্যাক্ট ক্লাব, চাঁদপুর কম্পিউটার সমিতি, ইনার হুইল ক্লাবসহ চাঁদপুরের আরো বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠন ও এনজিও প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।
    আলোচনা পর্ব শেষে চাঁদপুরের কৃতীসন্তান সাদী মোহাম্মদ ও তাঁর সহধর্মিণী শামীম আরা নীপার পরিচালনায় নৃত্য পরিবেশনের মধ্য দিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর একেএকে গান পরিবেশন করেন চাঁদপুরের কৃতী সন্তান একাধিক জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত কণ্ঠ শিল্পী এসডি রুবেল ও দিনাত জাহান মুন্নী। এছাড়া গীতিকার কবির বকুলের লেখা থিম্ সং পরিবেশন করেন (রেকর্ড করা) এসডি রুবেল ও দিনাত জাহান মুন্নী। ‘ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর’ জেলা ব্র্যান্ডিং ফেস্টিভ্যাল-এর কো-স্পন্সর প্রতিষ্ঠান ছিলো বাংলাদেশের খ্যাতনামা আকিজ গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠাতা ক্লেমন।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর