সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১
logo
মতলবের ধনাগোদা নদীর উপর নির্মাণাধীন ‘মায়া বীরবিক্রম সেতু’র কাজ পরিদর্শনকালে মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় দেশে আজ উন্নয়নের জোয়ার বইছে
প্রকাশ : ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬ ১২:০২:৪৪
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব
চাঁদপুর: দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম এমপি বলেছেন, মতলব সেতুর কাজ নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই শেষ করা হবে। দুই উপজেলাবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হলে এ এলাকার যাতায়াত ব্যবস্থা উন্নয়নের পাশাপাশি এলাকার উন্নয়ন দ্রুত তরান্বিত হবে। এছাড়া দু’ উপজেলার বিদ্যুৎ, ব্রিজ, কালভার্ট, রাস্তা-ঘাট এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো উন্নয়ন আগামী দুই বছরের মধ্যে শেষ হবে বলে আশা করছি। গতকাল শুক্রবার বিকেলে আকস্মিক চাঁদপুরের ‘মতলব সেতু’ পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
    ত্রাণমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় দেশে আজ উন্নয়নের জোয়ার বইছে। তিনি পরিবেশের উপর আন্তর্জাতিক ‘চ্যাম্পিয়নস অব দ্যা আর্থ’ পুরস্কার লাভ করেছেন। সারাবিশ্বে তার সুনাম রয়েছে।
    মতলব সেতুর প্রায় অর্ধেকের বেশী কাজ শেষ হওয়ায় পরিদর্শনে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন। সেতুর কাজ শেষ হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই এ সেতু উদ্বোধন করবেন।
    সেতু পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ, মতলব দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সিরাজুল মোস্তফা তালুকদার, ছেঙ্গারচর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব রফিকুল আলম জর্জ, মতলব উত্তর উপজেলা ইউপি চেয়ারম্যান কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও মোহনপুর ইউপির স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সামছুল হক চৌধুরী বাবুল, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম হাওলাদার, জহিরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি গাজী মুক্তার হোসেন, মতলব পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র মোঃ আবুল বাশার মিয়াজী পারভেজ, মতলব উত্তর ছাত্রলীগের আহবায়ক মিনহাজ উদ্দিন খান, যুগ্ম আহ্বায়ক তামজিদ সরকার রিয়াদ, মতলব দক্ষিণ উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আল-আমিন ফরাজী, ৩নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কিশোর কুমার ঘোষসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর