বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯
logo
হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজার বালুর মাঠে পবিত্র দরসূল কোরআন মাহফিলে আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী
কোরআন-সুন্নাহর আদর্শ সর্বত্র ছড়িয়ে দিলে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূল হবে
প্রকাশ : ২১ নভেম্বর, ২০১৬ ০৯:২০:১০
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক
চাঁদপুর:গত ১৯ নভেম্বর শনিবার হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজার বালুর মাঠে বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত হাজীগঞ্জ উপজেলা শাখার উদ্যোগে পবিত্র দরদসূল কোরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলার আলোড়ন সৃষ্টিকারী এ মাহফিল ওই দিন বিকেল ৩টা হতে শুরু হয়ে রাত ১১টায় শেষ হয়। মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সভাপতি, আওলাদে রাসূল (দ.), পীরে কামেল আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী। তিনি বলেন, কোরআন-সুন্নাহর আদর্শ সর্বত্র ছড়িয়ে দিলে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূল হবে। বর্তমানে সারাবিশ্বের অন্যতম সমস্যা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ। বিশ্বে জঙ্গিরা ধর্মের নাম ব্যবহার করে ইসলামকে বিতর্কিত করার অপ”েষ্টা চালাচ্ছে।
    তিনি এ চক্রান্তের পিছনে ইসলামের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে উল্লেখ করে আরও বলেন, ইহুদী গোষ্ঠী এদের চক্রান্তের সাথে মদদ দিচ্ছে। তারা তালিকা করে বিশ্ব মুসলমানদের নেতা ইয়াছির আরাফাত, সাদ্দাম হোসেন, কর্নেল গাদ্দাফিদের মতো সুশাসন প্রতিষ্ঠায় অবদান রাখা ব্যক্তিদের শহীদ করেছেন। হত্যার মাধ্যমে মুসলমানদেরকে নেতৃত্ব শূণ্য করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে তারা।
    বাংলাদেশ প্রিয় স্বদেশ উল্লেখ করে তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশও তাদের অন্যতম টার্গেট। ইতোমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় জঙ্গি হামলার মাধ্যমে তার বহি:প্রকাশ ঘটেছে। তারা সুন্নী মুসলমানদের নেতা আল্লামা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে নির্মমভাবে শহীদ করেছে। বর্তমান সরকার এখনও এর কোন সুষ্ঠু বিচার না করতে পারায় আমরা হতাশ।
    পবিত্র কোরআনের সূরা আন নসর এর দরস পেশ করতে গিয়ে চট্টগ্রাম নেছারিয়া আলিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের মহাসচিব, বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক, ওস্তাজুল ওলামা আলহাজ্জ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর বলেন, একমাত্র ঈমানদার লোক ব্যাতীত অন্য সকল লোক ক্ষতির সম্মুখীণ। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে সারা পৃথিবীর মানুষ শান্তির জন্য শান্তি চুক্তি করছে। কিন্তু শান্তির সন্ধান পাওয়া যায়নি। অথচ আজ থেকে প্রায় সাড়ে চৌদ্দশত বছর পূর্বে বিদায় হজ্জ্বের ভাষণে মানবতার মুক্তির দূত মহানবী (দ.) বিচার বহিঃর্ভূত হত্যা নিষিদ্ধ করে গেছেন। তিনি যে বাণী প্রদান করেছেন তাতে অনেক শান্তির সমাধান রয়েছে। তাই আজ রাসূলুল্লাহ (দ.)-এর আদর্শ সর্বত্র ছড়িয়ে দেয়া সময়ের দাবি।
    আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজাপুরা দরবার শরীফের পীর আল্লামা নাদিমুর রশীদ আল কাদরী বলেন, এ দেশে পীর মাশায়েখগণ সর্বপ্রথম ইসলামের বাণী মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন। এখনও সেই ধারাবাহিকতা বজায় রাখলে বাংলার শান্তি প্রিয় মানুষ গোমরাহী হবে না।
    সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক, বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক আল্লামা এমদাদুল হক বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গি আজ সমাজের রন্দ্রে রন্দ্রে প্রবেশ করেছে। জঙ্গিরা যেহেতু ধর্মের নাম ব্যবহার করছে সেহেতু জঙ্গিবাদ নির্মূলে সরকারি প্রচেষ্টার পাশাপাশি বিজ্ঞ আলেমদের সম্পৃক্ত করে কুরআন-সুন্নাহর সুমহান ব্যাখ্যা যথাযথভাবে উপস্থাপন ও খুৎবায় পাঠ করতে হবে। বর্তমান সরকারের প্রতি জোর দাবি থাকবে ধর্মের অপব্যাখ্যাকারী ও ধর্ম অবমাননাকারীদের আইন করে শান্তির বিধান নিশ্চিত করতে হবে।
    মাও: এম মনির হোসাইন বলেন, সর্বস্তরের শান্তির প্রিয় মুসলিম জনতার ঐক্য একান্ত প্রয়োজন। তরুণ ও যুবসমাজ যাতে বিভ্রান্ত না হতে পারে সেইজন্য আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের পতাকাতলে তাদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান করছি।
    মাস্টার মোঃ মাছুম বিল্লাহ ও সাংবাদিক এম. মঞ্জুর আলমের উপস্থাপনায় মাহফিলে আরও আলোচনা রাখেন, সুহিলপুর এবিএস ফাযিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা ছেফাত উল্যাহ, কাঁকৈরতলা সিনিয়র আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা মফিজুল ইসলাম, মাদ্রাসায়ে আবেদীয়া মোজাদ্দেদীয়ার সুপার আল্লামা মোহাম্মদ আলী নক্সবন্দী, কুমিল্লা ধামতী আলীয়া মাদ্রাসার প্রধান মোফাচ্ছের মিডিয়া ব্যক্তিত্ব আল্লামা রফিকুল ইসলাম হেলালী, মাদ্রাসায়ে আবেদীয়া মোজাদ্দেদীয়ার শিক্ষক মাওঃ আবুল হাশেম শাহ মিয়াজী। মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক মোঃ জাকির হোসেন মিয়াজী। মাহফিল এন্তেজামিয়া কমিটির পক্ষ থেকে পীরজাদা মাওঃ মুফতি মঈনুদ্দিন ভূঁইয়া আজমী মাহফিলের শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। মাহফিলে চট্টগ্রাম থেকে আগত আল মাদানী ইসলামিক কালচারাল ফোরামের শায়েরগণ হামদ্ ও নাত পরিবেশন করেছেন।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর