মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০
logo
প্রেসব্রিফিংয়ে জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল
প্রধানমন্ত্রীর আজকের ভিডিও কনফারেন্স সফল করতে গণমাধ্যমের সহযোগিতা প্রয়োজন
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৬ ১২:৫১:১২
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব
চাঁদপুর: আজ শনিবার সকাল ১১টায় চাঁদপুর জেলার ১৩৮৯ স্পটে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হবে। চাঁদপুর শহরের স্পটটি হচ্ছে হাসান আলী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ। এখানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সরাসরি গণমানুষের সাথে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী। এর আয়োজনে রয়েছে জেলা প্রশাসন। এ বিষয়ে গতকাল শুক্রবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল বিভিন্ন পর্যায়ের সাংবাদিকের উপস্থিতিতে সার্বিক ব্যবস্থাপনার বিষয়ে প্রেসব্রিফিং করেছেন।


চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি বিএম হান্নানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদীর উপস্থাপনায় প্রেসব্রিফিংয়ে জেলা প্রশাসক বলেন, চাঁদপুরের ১৩৮৯ স্পটে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সটি দেখানো হবে। দেশের ১১টি জেলার সাথে সংযুক্ত থেকে চট্টগ্রাম বিভাগের ৫টি জেলার জনগণের সাথে প্রধানমন্ত্রী কথা বলবেন। এর মধ্যে চাঁদপুরও রয়েছে। চাঁদপুরের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ তাদের সমস্যা ও সম্ভাবনার দিক তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলবেন। আমাদের সকল আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে। চাঁদপুর ক্যাবল নেটওয়ার্ক, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি সম্প্রচারের কথা প্রচার করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সটি সফল ও সার্থক করতে গণমাধ্যমের সার্বিক সহযোগিতা চাই। আমরা আশা করি চাঁদপুর প্রেসক্লাবের নেতৃত্বে সাংবাদিকরা সে কাজটি করবেন।


ভিডিও কনফারেন্সে অংশগ্রহণকারীদের প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক বলেন, ভিডিও কনফারেন্সে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণ থাকবে না। এখানে সাধারণ মানুষ প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলবেন। আশা করি চাঁদপুরের মানুষ এ ব্যাপারে শৃঙ্খলাপূর্ণ আচরণ করবেন। তারা প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বললে চাঁদপুরের উন্নয়নের দিকগুলো উঠে আসবে। পাশাপাশি চাঁদপুরের বিভিন্ন সমস্যা পর্যায়ক্রমে সমাধান হবে।


তিনি আরো জানান, ইতোমধ্যে চাঁদপুরে একটি মেডিকেল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, ইকো পার্ক, রোয়ানুতে ক্ষতিগ্রস্ত চাঁদপুর বড়স্টেশন মোলহেডসহ বাঁধের বিভিন্ন স্থান মেরামতে ২শ' কোটি টাকা বরাদ্দ অনুমোদন ও চাঁদপুরকে প্রথম ব্র্যান্ডিং জেলা ঘোষণা করা হয়েছে। চাঁদপুরবাসী অনেক কিছু পেয়েছে, আবার অনেক উন্নয়ন প্রাথমিক অবস্থায় রয়েছে। এগুলো পর্যায়ক্রমে হবে। সবগুলো বাস্তবায়ন হলে চাঁদপুর দেশের ১ নম্বর জেলা হিসেবে স্বীকৃতি পাবে। চাঁদপুরের তাজা বিষয়গুলো প্রধানমন্ত্রীর কাছে উপস্থাপন করা হবে।


ইলিশ বিষয়ে জেলা প্রশাসক জানান, চাঁদপুরবাসী ইলিশের মূল স্বাদ এ বছর পেয়েছে। জেলেরা অনেক সচেতন হয়েছে। আমি অভিভূত জেলেরা এবার নদীতে মা ইলিশ শিকার করতে নামেনি। তাদের বিরুদ্ধে সামরিক কায়দায় অস্ত্র ধরা হয়নি। তারা নিজেরাই বিষয়টি বুঝতে পেরেছে। তিনি বলেন, চাঁদপুরে আমি যেসব কাজ করেছি তার সবগুলো এখনো উপস্থাপন করা হয়নি। যেগুলো করা হয়েছে এগুলো স্বাভাবিকভাবেই হতো। যেদিন চাঁদপুর ছেড়ে চলে যাবো সেদিন ওইসব উন্নয়নের কথা বলবো, যা এখনো বলি নি।


জেলা প্রশাসক বলেন, চাঁদপুর জেলার অনেক পরিবর্তন হয়েছে। চাঁদপুরবাসী প্রমাণ করেছে বিনা পুঁজিতে ১২শ' থেকে ১৫শ' কোটি টাকা পর্যন্ত শুধু ইলিশ থেকেই আয় করা সম্ভব। দেশের এমন কোনো খাত নেই যেখানে বিনা পুঁজিতে ৫শ' কোটি টাকা আয় করা সম্ভব। শুধু সচেতন থাকলে চাঁদপুরের ইলিশ থেকে অনেক আয় করা সম্ভব। এসব বিষয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরা হলে তিনি চাঁদপুরবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞ থাকবেন বলে জানান। গণমাধ্যম প্রশাসনের সহযোগী হিসেবে আগেও কাজ করেছে এখনও করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।


প্রেসব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাহাদাৎ হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (আইসিটি ও শিক্ষা) মোহাম্মদ আব্দুল হাই, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মাসুদ হোসেন ও চাঁদপুর সদর ইউএনও উদয়ন দেওয়ানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের সাংবাদিক ও প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ।


সাংবাদিকের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত, শাহ মোঃ মাকসুদুল আলম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, গিয়াস উদ্দিন মিলন, যুগ্ম সম্পাদক লক্ষ্মণ চন্দ্র সূত্রধর, সময় টিভির স্টাফ রিপোর্টার ফারুক আহম্মদ প্রমুখ।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর