বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯
logo
৪৫তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মণ্ডল
চাঁদপুরে সমবায়ীদের নিয়ে কর্মশালা করা একান্ত প্রয়োজন
প্রকাশ : ০৬ নভেম্বর, ২০১৬ ১২:৪৪:৩৯
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক
চাঁদপুর: ৪৫তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা সমবায় অধিদপ্তর ও চাঁদপুর সমবায়ীবৃন্দের যৌথ আয়োজনে পতাকা উত্তোলন, র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ৫ নভেম্বর শনিবার সকাল ৯টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় পতাকা ও সমবায়ী পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মণ্ডল। উদ্বোধন শেষে সমবায় দিবসের র‌্যালি শহর প্রদক্ষিণ করে পুনরায় শিল্পকলা একাডেমিতে এসে শেষ হয়। পরে ‘সমবায়ের দর্শন-টেকসই উন্নয়ন’ এ প্রতিপাদ্যের উপর ভিত্তি করে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
    জেলা সমবায় কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা রেজাউল করিমের পরিবেশনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মণ্ডল। বক্তব্যের শুরুতে তিনি আবু নঈম পাটোয়ারী দুলালকে সমবায়ী জাতীয় পুরস্কার পাওয়ায় অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, সমবায় মানে হলো, দশের লাঠি একের বোঝা। রেজিস্ট্রেশনকৃত সমবায় সংগঠনগুলোর আর্থিক লেনদেন করার জন্যেই করা হয়ে থাকে। ইলিশ যেমন জাঁক বেধে চলে তেমনি সমবায় মানে সম্মিলিত শক্তি। সমবায়ের প্রতিষ্ঠাতা আকতার হামিদ খান দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্যে সমবায় সমিতি গঠন করে কাজ করেছিলেন। চাঁদপুরে সমবায়ীদের নিয়ে কর্মশালা করার প্রয়োজন রয়েছে। এ বছর তা করা হবে। মাস-দিন ও ঘণ্টা হিসাব করা প্রয়োজন। কেননা বছর যেতে সময় লাগে না। ২০১৬ সালের শেষ হতে আর ৫০ দিন বাকি আছে। তাই এ বছরই সমবায়ীদের জন্যে কর্মশালা করা প্রয়োজন। আপনারা যদি সময় নির্ধারণ করেন তাহলে ওই অনুষ্ঠানে যা যা প্রয়োজন আমরা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের পক্ষ থেকে সহায়তা করবো।
    অন্যান্য বক্তারা বলেন, চাঁদপুর জেলা এ পর্যন্ত জাতীয় সমবায়ে ৪ বার জাতীয় পুরস্কার অর্জন করেছে। আজকে ২০১৪ সালের শ্রেষ্ঠ সমবায়ীর পুরস্কার গ্রহণ করছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল। চান্দ্রা শিক্ষিক বেকার যুবক সমিতি ২ বার জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে। ওই সমবায় প্রতিষ্ঠানের পরিচালক জসীম উদ্দিন শেখ ২ বার শ্রেষ্ঠ সমবায়ীর জাতীয় পুরস্কার অর্জন করেছে। বক্তারা আরো বলেন, সমবায়ের কিছু সমস্যা রয়েছে তা দূর করতে হবে। সমবায় দিবসটি আজ চাঁদপুরের জন্যে গৌরবের। ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে চাঁদপুরের কৃতি সন্তান আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল পুরস্কার গ্রহণ করছেন। দশে মিলে করি কাজ, হারি জিতি নাহি লাজ এ কথা থেকেই সমবায়ের সৃষ্টি। সমবায় ও মাইক্রো ক্রেডিট দুটিকে এক করে দেখলে চলবে না। এ দুটি ভিন্ন ভিন্ন প্রতিষ্ঠান। সমবায়ের মাধ্যমে অনেক বেকার যুবকের কর্মসংস্থান হয়েছে। আবার মাইক্রো ক্রেডিট ব্যবসা করে অনেকে সর্বশান্ত হয়েছে। সমবায়ের কার্যক্রম অনলাইন ভিত্তিক করা হলে তা আরো অনেক দূর এগিয়ে যাবে। বক্তারা আরো বলেন, অনেক সমবায় প্রতিষ্ঠান অনুমতি নিয়ে কিছুদিনের জন্যে খুলে গ্রাহকদের মূলধন নিয়ে পালিয়ে যায়। কিন্তু অনলাইন ভিত্তিক কার্যক্রম চালালে পালিয়ে যাওয়া ও গ্রাহক হয়রানির দুর্ভোগ লাঘব হবে। অধিক মুনাফার জন্যে সমবায় সমিতি গঠন করা হয়। আমরা সমবায়ী হয়েছি নিজেদের ভাগ্য উন্নয়নের জন্যে। সমবায় হচ্ছে বিশ্বাস। এর মাধ্যমে অনেকভাবে উন্নয়ন ও স্বাবলম্বী হওয়া যায়। সমবায়ের মাধ্যমে দেশকে উন্নত করা যায়। সমবায় অগ্রযাত্রায় কুমিল্লার দিদার সমবায় সমিতি এক সময় অনেক দূর এগিয়েছিলো। কিন্তু কালের আবর্তে এ দিদার সমবায় সমিতির আর চিহ্ন পর্যন্ত নেই। এক সময় এ সমিতির বৃহৎ প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে ক্ষুদ্র অনেক প্রতিষ্ঠান ছিলো। কিন্তু আজ তার কোনো হদিস নেই।
    এ সময় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান, বিআরডিবির সাবেক সভাপতি অ্যাডঃ জহিরুল ইসলাম, প্রেসক্লাব সভাপতি বিএম হান্নান, পল্লী উন্নয়ন ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক আলী আরশাদ মিয়াজী, ইকবাল আজম, সদর উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মোঃ ফারুক আলম, চান্দ্রা শিক্ষিক বেকার যুবক ঋণদান সমবায় সমিতির মোঃ নুরু শেখ, যুবধারা সমবায় সমিতির মোঃ জুলহাস উদ্দিন প্রমুখ।
    সভার শুরুতে কোরআন তেলোওয়াত করেন ছালামত উল্যাহ ও গীতা পাঠক করেন অমল চন্দ্র নন্দী।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর