সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০
logo
শ্রীপুরে লায়ন্স ক্লাব অব চাঁদপুর রূপালীর শিক্ষা উপকরণ বিতরণ
৬শ' শিক্ষার্থীর উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসকের ৮০ মিনিটের বক্তব্য
প্রকাশ : ২৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:৫৯:৩৫
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর বার্তা রিপোর্ট
প্রকাশ : ২৪ অক্টোবর, ২০১৬
চাঁদপুর: ঘড়ির কাঁটায় ৮০ মিনিটের বক্তব্য দিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল। হাজীগঞ্জের বাকিলা ইউনিয়নস্থ শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের হলরুমে লায়ন্স ক্লাব অব চাঁদপুর রূপালীর আয়োজনে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে ওই দীর্ঘ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক। বিদ্যালয়ের প্রায় ৬শ' শিক্ষার্থীর উদ্দেশ্যে জেলার প্রশাসকের মূল বক্তব্য ছিলো মাদক, বাল্যবিবাহ, জঙ্গিবাদ, সরকারের বিভিন্ন কর্মপরিকল্পনা, দেশের বর্তমান ও ভবিষ্যত উন্নয়ন, স্বাধীনতা, আইএসসহ বিভিন্ন বিষয়ে, যা শিক্ষার্থীদের জন্যে গুরুত্ব বহন করবে।
    গত ২২ অক্টোবর দুপুর ঘড়ির কাটা ঠিক ১টা ২৬মিনিটে বক্তৃতা শুরু করে ২টা ৪৬ মিনিট পর্যন্ত একটানা বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল। তাঁর বক্তব্যের পুরো সময়টাই ছিলো নানা উপদেশ ও শিক্ষামূলক। তিনি বলেন, আমাদের সময় আমরা একটা হাতঘড়ি বা সাইকেলের জন্যে ভালো পড়ালেখা করতাম। বাবা-মা বলতেন ভালো করলে ঘড়ি দেয়া হবে। আর আজকের ছেলেমেয়েরা ল্যাপটপ বা এন্ড্রয়েড ফোন হাতে পাচ্ছে। সময়ের পরিবর্তন হচ্ছে। তিনি বলেন, তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে জ্ঞানের বৈষম্য দূর করা সম্ভব। টেকনোলজিতে দেশ অনেক এগিয়েছে। দেশের প্রতিটি নাগরিকের তথ্য সরকারের কাছে রয়েছে। আমাদের সময়ে আমরা বাংলা ভাষা মানে ১টা ভাষা শিখেছি। আর এখনকার শিশুরা ২/৩টা ভাষা শিখছে। আমরা যে অনেক এগিয়েছি তাই প্রমাণ করে।
    জঙ্গি বিষয়ে জেলা প্রশাসক বলেন, মুসলমানদের সবচে বড় পরীক্ষা ছিলো হযরত মুহাম্মদ (সঃ)-এর মক্কা বিজয়। মক্কা বিজয় করতে গিয়ে নবীজী শত্রুপক্ষকে ক্ষমা করে দিয়েছেন, কাউকে হত্যা করেননি। আর আজ ইসলাম ধর্মের নামে আইএস বলে দেশে যারা টোকা দিচ্ছে তারা আসলে আইএসের কেউ নেয়। আমাদের দেশে আইএস নেই। আমাদের দেশের মুসলিমরাই আসল মুসলিম। আমাদের মতো এতো ধর্মীয় কাজ বিশ্বের অন্য কোনো দেশের মুসলমানরা করে কিনা আমাদের জানা নেই।
    মাদকের বিষয়ে আব্দুস সবুর মন্ডল বলেন, মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা হয়েছে। এ তালিকা তৈরি করতে আমরা বিভিন্ন সংস্থাকে কাজে লাগিয়েছি। এ নিয়ে পুলিশ সুপার কাজ করছেন। আমরা জানুয়ারি থেকে জেলাকে মাদকমুক্ত ঘোষণা করতে পারবো। সরকার যেভাবে প্রত্যাশা করছে সেভাবেই আমরা এগুচ্ছি। আশা করি ২০২১ সালের মধ্যে চাঁদপুর জেলাকে পুরোপুরি বাল্যবিবাহ মুক্ত করা সম্ভব হবে। বাল্যবিবাহ রোধে ১২ থেকে ১৮ বছরের মেয়ে এবং ১২ থেকে ২১ বছরের ছেলেদের নিয়ে ডাটাবেজ তৈরি করা হবে। ঐ ডাটাবেজ তৈরিতে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের শিক্ষক, ইউপি সদস্য ও উপজেলা প্রশাসন কাজ করবে। ডাটাবেজ তৈরি শেষ হলে কেউ ইচ্ছে করলেই বাল্যবিবাহ দিতে পারবে না বা করতে পারবে না।
    শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি অহিদুজ্জামান পাটোয়ারীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সফিকুর রহমান, লায়ন্স ক্লাব অব চাঁদপুর রূপালীর প্রেসিডেন্ট অ্যাডঃ এজেডএম রফিকুল হাসান রিপন, লিও জেলা প্রেসিডেন্ট ইসমাঈল, পিপি মাহমুদ হাসান খান, আইপিপি মুহাঃ সাকী কাওসার, ফাস্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট আহসান উল্যাহ খান, সেকেন্ড ভাইস প্রেসিডেন্ট বিএম হারুন অর রশিদ, থার্ড ভাইস প্রেসিডেন্ট একে শামছুল হক, সেক্রেটারী জিকরুল আহসান, সহ-সেক্রেটারী কিশোর কুমার সিংহ রায়, কোষাধ্যক্ষ মফিজুল ইসলাম খান, সহ-কোষাধ্যক্ষ নির্মল চন্দ্র সাহা, লায়ন আবুল কালাম আজাদ, সাখাওয়াত হোসেন, দেওয়ান মোঃ সুরুজ, কামরুল হাসান, গোলাম হোসেন টিটু, মিজানুর রহমান, শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মিজানুর রহমান, শ্রীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আবুল কালাম পাটওয়ারী, প্রধান শিক্ষক আবু বকর সিদ্দিক এবং লিও সদস্যবৃন্দসহ শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থী।
    বিদ্যালয়ের ১শ' শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণের পূর্বে শ্রীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২শ' ১০জন শিক্ষার্থীর মাঝে টিফিন বঙ্ বিতরণ করা হয়।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর