শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০
logo
চাঁদপুরে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম
টাস্কফোর্সের অভিযানে ১৬ কেজি ইলিশ ১২ হাজার মিটার জাল জব্দ
প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:২৭:৩৭
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: চাঁদপুর জেলার পদ্মা-মেঘনা নদীতে গতকাল ১৫ অক্টোবর ১৬ কেজি ইলিশসহ ১২ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করেছে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রমে গঠিত টাস্কফোর্স।
জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানানো হয়, গতকাল বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটি মোবাইল কোর্ট, ৪টি অভিযান পরিচালিত হয়েছে। এ সময় ৮টি মাছ ঘাট, ১২টি মাছের আড়ৎ ও ৯টি মাছ বাজার পরিদর্শন করা হয়। মেঘনা নদীর রাজরাজেশ্বর এলাকা থেকে ১৬ কেজি ইলিশসহ বারো হাজার মিটার কারেন্ট জাল উদ্ধার করা হয়। আটক জালগুলো পুড়িয়ে ধ্বংস এবং ইলিশ মাছ খন্দকার ফিশ কোল্ড স্টোরেজে রাখা হয়েছে।
এদিকে নৌ-পুলিশ চাঁদপুর বিভাগের পুলিশ সুপার সুব্রত কুমার হালদার জানান, গত ১৪ অক্টোবর মা ইলিশ না ধরার নৌ-পুলিশের অভিযানে মনপুরা নদী থেকে ১৯ হাজার ৫শ' মিটার কারেন্ট জাল, বাদরখালী চকোরিয়া কঙ্বাজার নদী এলাকা থেকে ৩ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, ২ হাজার মিটার বেহুন্দি জাল এবং ২টি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া লক্ষ্মীপুর রামগতি, বোরখালী থেকে ৫ হাজার মিটার কারেন্ট জালসহ ২ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে ১ হাজার টাকা জরিমানা আদায়, কুয়াকাটা নদী থেকে ১ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, চাঁদপুর সদর উপজেলার মেঘনা নদী থেকে ২ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, বরিশাল থেকে ১০ হাজার মিটার করেন্ট জাল এবং ৪ জন জেলেকে মাছ ধরার অপরাধে আটক করে দুই বছরের কারাদ- দেয়া হয়। মা ইলিশ রক্ষায় নৌ-পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে ওই কর্মকর্তা জানিয়েছেন।
উল্লেখ্য, ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে প্রজননক্ষম ইলিশ মাছ সংরক্ষণ কার্যক্রম ২০১৬ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে গত ১২ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে সরকার ঘোষিত ২২দিনের ইলিশ অভয়াশ্রম কার্যক্রম। চলবে ২ নভেম্বর পর্যন্ত। এই সময়ের মধ্যে চাঁদপুর জেলার পদ্মা-মেঘনা নদীতে মা ইলিশসহ সকল প্রকার মাছ ধরা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। এছাড়াও সারাদেশে ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ ও বিক্রি সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ এবং দ-নীয় অপরাধ।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর