সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০
logo
আজ দেবীদুর্গার মহাসপ্তমী পূজা ॥ কাল মহাঅষ্টমী
প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:২০:১৯
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: শান্তির অমর বাণী শুনাতে স্বর্গধাম থেকে মর্ত্যে এসেছিলেন মহামায়া, আনন্দময়ী, ত্রিনয়নী, দশহস্তের দেবী দুর্গা। শরৎকালের দুর্গোৎসব হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব। শরৎকলের অকাল বোধনের পূজা এটি। বাঙালির প্রতিটি ঘরে, পাড়া-মহল্লায় বইছে দুর্গাপূজার আনন্দ উৎসব।
    বিশুদ্ধ পঞ্জিকা মতে দেবীদুর্গা এ বছর ঘোটকে চড়ে এসেছেন। আগামী ১১ অক্টোবর বিজয়া দশমীর মধ্য দিয়ে ঘোটকে চড়েই ফিরে যাবেন। গত ৩০ সেপ্টেম্বর মহালয়ার মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। আজ ৮ অক্টোবর শ্রীশ্রী দুর্গাদেবীর নব পত্রিকা প্রবেশ ও স্থাপন। সপ্তমী তিথির সায়ংকালে দেবীর সপ্তমী বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হবে। এ বছর চাঁদপুর সদর উপজেলায় ২৮টি পূজা ম-পে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের নির্দেশে ও কড়া নিরাপত্তা বলয়ের মাধ্যমে পূজার কার্যক্রম চলছে। তবে প্রতিটি পূজা ম-পকে সিসি ক্যামেরার আয়ত্বে নিয়ে আসা হয়েছে। এমনকি প্রতিটি পূজা ম-পে নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্যে আনসার ও পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।
    একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, আজ সপ্তমী পূজা থেকে র‌্যাব-১১ সদস্যরা ও চাঁদপুরের পূজা ম-পগুলোতে নজরদারি করবে। গতকাল ৭ অক্টোবর দেবী দুর্গার অধিবাসের মাধ্যমে ও ষষ্ঠী বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ষষ্ঠী পূজায় ম-পগুলোতে লোক সমাগম না থাকলেও শিশু-কিশোররা আনন্দ আর উদ্দীপনায় মেতে উঠেছিলো। চাঁদপুর সদর উপজেলার ২৮টি পূজা ম-পের মধ্যে ৪টি পূজা ম-প শহর এলাকার বাইরে। এর মধ্যে কল্যাণপুর ইউনিয়নের ডাসাদি বড় সূত্রধর বাড়ি, মহামায়া দত্ত বাড়ি, মনোহরখাদি দামোদরদী কমল কৃষ্ণ বাড়ি ও চরবাকিলা সূত্রধর বাড়ি পূজা ম-প। এ ম-পগুলোর প্রতি জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন আলাদাভাবে বাড়তি নজরদারি রেখেছে। জেলার অন্যান্য উপজেলার মধ্যে ফরিদগঞ্জ উপজেলায় ১৮টি, শাহরাস্তি উপজেলায় ১৫টি, হাজীগঞ্জ উপজেলায় ২৪টি, হাইমচর উপজেলায় ৬টি, কচুয়া উপজেলায় ৩৯টি, মতলব উত্তর উপজেলায় ২৮টি ও মতলব দক্ষিণ উপজেলায় ৩৩টিসহ জেলায় ১৯৩টি ম-পে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কাল ৯ অক্টোবর মহাঅষ্টমী পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর