শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯
logo
মতলবে আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে নেতাদের ছবি ছিঁড়ে ফ্রেম ছিনতাই
প্রকাশ : ০৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:১২:৩০
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: মতলব দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে থাকা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রমের ছবি সম্বলিত ফেস্টুন ছিঁড়ে কাঠের ফ্রেম ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে। গত ৩ অক্টোবর সন্ধ্যায় স্থানীয় মাহফুজ ডিজিটাল সাইনের মালিক মাহফুজ মলি্লক জাতির জনক, প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রী মায়া চৌধুরীর ছবি ছিঁড়ে ফেস্টুনের কাঠের ফ্রেম ছিনতাই করে বলে অভিযোগ করা হয়।
স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের কেয়ারটেকার নলু জানান, আমি আওয়ামী লীগ অফিসের কেয়ারটেকার থাকাবস্থায় দীর্ঘদিন যাবৎ অফিসের সামনে একটি ছোট বাঙ্ নিয়ে পান সিগারেট বিক্রি করে আসছি। এতে কোনো রকমে আমার সংসারের ব্যয় নির্বাহ করছি। ঘটনার দিন সন্ধ্যায় সাইনবোর্ড ব্যবসায়ী মাহফুজ মলি্লক আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ঢুকে কার্যালয়ে থাকা বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় সাংসদের ছবি সম্বলিত একাধিক ফেস্টুন ছিঁড়ে কাঠের ফ্রেম নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় আমি ছবি ছিঁড়ে কাঠের ফ্রেম নিতে বাধা দিলে আমাকে মাহফুজ মলি্লক ও তার সহকারী রফিক অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করেন। আমাকে মারধর করতে উদ্যত হন। এছাড়া মাহফুজ আমাকে এ বলে শাসায়, তোকে আমি দেখিয়ে দেবো। আমার বিএনপির লোকজন দিয়ে তোকে খেয়ে ফেলবো। বিষয়টি আমি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম গিয়াস উদ্দিন, সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির প্রধান, দেওয়ান মোঃ রেজাউল করিম ও সাধারণ সম্পাদক বিএইচএম কবির আহম্মেদকে জানিয়েছি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিভিন্ন সময় আমরা দেখেছি সাইনবোর্ড ব্যবসায়ী মাহফুজ মলি্লক নিজে বিভিন্ন ফেস্টুন ছিঁড়ে কাঠের ফ্রেম নিয়ে যায়। পরে ঐ ফ্রেম অন্য ফেস্টুনে লাগিয়ে ব্যবসার কাজ চালিয়ে নেয়। ডিজিটাল সাইন ব্যবসায়ী মাহফুজ মলি্লকের সাইন বোর্ডের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সাথে। সেই সুবাধে মাহফুজ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন তথ্য বিএনপির নেতৃবৃন্দের সাথে বিনিময় করে।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম গিয়াস উদ্দিনের সাথে এ ব্যাপারে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিএইচএম কবির আহম্মেদের কাছে এ ব্যাপারে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি জানান, বিষয়টি আমাকে অবহিত করা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির প্রধানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে ডিজিটাল সাইন ব্যবসায়ী মাহফুজ মলি্লকের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, আমার সাথে নলুর কিছুই হয়নি। আমি কোনো ফেস্টুন ছিঁড়িনি।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর