শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯
logo
রিসিট দেখিয়ে বেপরোয়া চাঁদাবাজি
চাঁদপুরে মেঘনায় ৩টি লাইটার জাহাজে ডাকাতি ॥ আহত ৫
প্রকাশ : ০৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:৫৩:৫৮
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: চাঁদপুর জেলার হাইমচর উপজেলার শেষ সীমানায় মেঘনা নদীতে মালবাহী ৩টি লাইটার জাহাজে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতদল দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ৫ জনকে আহত করে প্রায় নগদ ২ লাখ টাকা, মোবাইলসহ বেশ কিছু মালামাল লুট করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে, শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় হাইমচর উপজেলার শেষ সীমানায় ১৩নং গোবিন্দপুর ইউনিয়নের মেঘনা নদীতে।
    জানা যায়, মোংলা হারবারিয়া থেকে মোহাম্মদ আলী শিপিং করপোরশেন এমভি নজরুল ইসলাম (এম নং-৬৮৮৪) ৫শ’ ৬০ টন সরকারি সার নিয়ে নগরবাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়। জাহাজটি হাইমচর শেষ সীমানায় ১৩ নং গোবিন্দপুর ইউনিয়নের আসার পর একটি ট্রলার নিয়ে কয়েকজন চলন্ত জাহাজে উঠে রিসিট দেখিয়ে ২শ’ টাকা নেয়। তারা নেমে যাওয়ার পরেই আরেকটি ট্রলার নিয়ে ৬ জন ডাকাত দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জাহাজের মাস্টার ও ড্রাইভারের উপর হামলা চালায়। এ সময় মাস্টার সজিব (৩০), ড্রাইভার (৪০), বাবুর্চী সাধন (৪০)সহ বেশ কয়েকজনকে কুপিয়ে আহত করে। ডাকাতদল মাত্র ১০ মিনিটের অভিযান করে জাহাজের লোকজনের প্রায় নগদ ২ লাখ টাকা, মোবাইলসহ বেশকিছু মালামাল লুট করে। জাহাজ চাঁদপুর লঞ্চঘাট এলাকায় এসে নোঙ্গর করে আহতদের চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়। ঘটনার দির রাতে সে ডাকাত দল একই সাথে এমভি ছানিম লাইটার জাহাজে ডাকাতি করে। শুক্রবার রাতে এমভি ছিহাভ খাঁন জাহাজে ডাতাতি করে বেশ কয়েকজনকে আহত করে নগদ টাকা ও মালামাল লুট করে। এ ব্যাপারে এমভি নজরুল ইসলাম জাহাজের মাস্টার সজিব জানায়, প্রায় প্রতিদিন গোবিন্দপুর ইউনিয়নের মেঘনা নদীতে ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। নৌ পুলিশের কোনো অভিযান না থাকায় ডাকাতরা এভাবে ঘটনা ঘটাচ্ছে। তাদের হাত থেকে প্রাণে রক্ষা পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর