শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯
logo
সদ্য সংবাদ :

জিএসপি সুবিধা পুনর্বহাল না হওয়া দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী

সুন্দরী নার্সের সান্নিধ্যে সারবে ধূমপানের বদ অভ্যাস!

এমটিসি গ্লোবাল-আইসিটি এ্যাওয়ার্ড পেলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান মোঃ সবুর খান

এ সংগঠনের ন্যায় সকল সংগঠনেরই মাদকবিরোধী কার্যক্রমে এগিয়ে আসা প্রয়োজন

হরিণা ফেরিঘাটে চাঁদাবাজি

ঈদুল আযহা শেষ হলেও চাঁদপুর লঞ্চঘাটে যাত্রীদের ভিড় কমেনি

চাঁদপুর মাছঘাট থেকে ইলিশের ডিম প্রক্রিয়াজাত করে বিদেশ পাঠানো হচ্ছে

কৃষি, মৎস্যখাতে উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি অন্যান্য বিষয়ে নজর দিতে হবে

'রিজার্ভ চুরির ১১৯ কোটি টাকা দু'এক দিনের মধ্যে আসছে'

গম্ভীরকে সবচেয় বেশি ঘৃণা করি: আফ্রিদি

মাদ্রাসা ও নিশি রোডে যানজটে যাত্রীদের দুর্ভোগ
ঈদুল আযহা শেষ হলেও চাঁদপুর লঞ্চঘাটে যাত্রীদের ভিড় কমেনি
প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:৪২:৪৩
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: এখনো চলছে ঈদুল আযহা শেষে কর্মজীবনে রাজধানীতে ফেরা মানুষের ঢল। গত ১৩ সেপ্টেম্বর ঈদুল আযহা শেষ হলেও এখনো চাঁদপুর মাদ্রাসা রোড লঞ্চঘাটে যাত্রীদের ভিড় কমেনি। লঞ্চঘাটে প্রবেশের ও বাহিরের দুটি সড়কে দীর্ঘ যানজট লেগেই থাকে। এতে করে লঞ্চ যাত্রীদের পড়তে হচ্ছে চরম ভোগান্তিতে।
    গতকাল ১৯ সেপ্টেম্বর সোমবার সকাল ১০টায় লঞ্চ টার্মিনাল ঘাটে যাওয়ার পথে দেখা যায়, নিশি বিল্ডিং রাস্তায় ও মাদ্রাসা রোডে দীর্ঘ যানজট। যার ফলে অনেক যাত্রী সিএনজি স্কুটার, অটোবাইক ও রিক্সা থেকে নেমে পায়ে হেঁটে দ্রুতগতিতে লঞ্চ টার্মিনালে ছুটে যাচ্ছে নির্দিষ্ট সময়ের লঞ্চ ধরতে আর নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছতে। দুপুর সোয়া ১২টায় চাঁদপুর থেকে ঢাকা অভিমুখে ছেড়ে যাওয়া রফরফ লঞ্চে যেনো পা রাখার তিল পরিমাণ স্থান ছিলো না। লঞ্চের সামনে, বাহিরে, ছাদে সবখানেই যাত্রীর ভিড় ছিলো। তবে অনেক যাত্রী নিচতলায় সীট না পেয়ে বিছানা করে পরিবার-পরিজন ও বাচ্চাদের নিয়ে বসতে দেখা যায়।
    খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রোববারের চেয়ে গতকাল যাত্রী কম ছিলো। প্রতিটি লঞ্চেই অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে চাঁদপুর ঘাট ছেড়ে গেছে। সোনারতরী, ঝমঝম এসব বড় বড় লঞ্চগুলো ধারণ ক্ষমতার ২/৩ গুণ বেশি যাত্রী নিয়ে চাঁদপুর ঘাট ছেড়ে ঢাকায় গিয়েছে। যাত্রীদের পাশাপাশি কতিপয় ব্যক্তিরা মোটর সাইকেল নিয়ে ঘাটে এসেছিলো ঢাকা যাবার জন্যে। লঞ্চের চাঁদপুর ঘাটের সুপারভাইজারগণ কোনো মোটর সাইকেল লঞ্চে পরিবহন করেনি। তারা জানায়, যেখানে যাত্রীর চাপ রয়েছে সেখানে অন্য যানবাহন এখন লঞ্চে পরিবহন করা সম্ভব নয়। তাই আমরা লঞ্চে এখন মোটর সাইকেল পরিবহন বন্ধ রেখেছি। দেখা গেছে, অনেক যাত্রী পন্টুনে দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে রয়েছে। তাদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, লঞ্চগুলোতে পর্যাপ্ত ভিড় থাকায় তারা উঠছে না। পরবর্তী লঞ্চের জন্যে অপেক্ষা করছে। তবে ২/১ দিনের মধ্যে ঈদুল আযহা পরবর্তী যাত্রীদের চাপ কমে যাবে বলে বিআইডব্লিউটিএ কর্মকর্তারা মনে করেন।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর