মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯
logo
নতুনবাজার বাগাদী রোডে আন্তঃজেলা চোর চক্রের ২ সদস্য আটক
প্রকাশ : ০৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:০৭:৪৪
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: চাঁদপুর শহরের নতুনবাজার বাগাদী রোডস্থ ময়দার মিল সংলগ্ন ফ্লাট বাসা থেকে আন্তঃজেলা চোর চক্রের ২ সদস্যকে আটক করেছে চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ। গতকাল ৫ সেপ্টেম্বর সোমবার সন্ধ্যায় তাদেরকে আটক করা হয়।
    জানা যায়, অ্যাডঃ আমান উল্যাহর বাসভবনের নিচতলায় দীর্ঘদিন যাবৎ কমিউনিটি ক্লিনিকের কর্মকর্তা মোস্তফা কামাল সবুজ পাটোয়ারী ভাড়া থাকেন। প্রতিদিনের ন্যায় গতকাল মোস্তফা কামাল তার কর্মস্থল কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত ছিলেন। বিকেল ৪টায় তার স্ত্রী দরজায় তালা লাগিয়ে জরুরি প্রয়োজনে ঔষধ আনতে বাজারে যায়। তিনি বাসায় এসে দেখেন দরজার তালা ভাঙ্গা। এ সময় ভেতরে থাকা ২ চোর মোস্তফা কামালের স্ত্রীর উপস্থিতি টের পেয়ে তারা ভেতর থেকে দরজা আটকিয়ে দেয়। এ সময় মোস্তফা কামালের স্ত্রীর সন্দেহ হলে তিনিও বাইরে থেকে দরজায় সিটকারি লাগিয়ে বাড়িওয়ালার স্ত্রী ও পেছনের বাসার আরেকজন ভাড়াটিয়া মহিলাকে বিষয়টি অবহিত করেন। তারা ৩ জন মিলে দরজার আশপাশে থাকেন এবং বাসার সামনের দোকানে থাকা লোকজনকে বিষয়টি জানান। মুহূর্তের মধ্যে জানাজানি হয়ে গেলে উৎসুক জনতা পুরো বাসাকে ঘিরে রাখে। পরে স্থানীয়রা চাঁদপুর মডেল থানাকে অবহিত করলে এসআই অনুপ চক্রবর্তী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে বাসায় প্রবেশ করে চোর ১ জনকে আটক করে। তার স্বীকারোক্তিতে অপরজনকে বাসার ভেতরে বাথরুমের উপরে স্টোররুম থেকে আটক করা হয়। বাইরে অপেক্ষমান উৎসুক মানুষকে সামাল দিতে পরবর্তীতে এসআই নুরুল ইসলাম মজুমদার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে আসেন। পরে ২ চোরকে থানায় নিয়ে আসা হয়। চোর মানিকের বাড়ি সিলেটের শাহপরান থানাধীন মেজর টিলাবাদ গ্রামে। অপরজন জাফর হোসেনের বাড়ি নোয়াখালী জেলার সুধারাম থানাধীন হাকিমপুর গ্রামে।
    এসআই অনুপ চক্রবর্তী জানান, এরা ২ জন আন্তঃজেলা চোর চক্রের সদস্য। তাদেরকে আটক করার পর তাদের কাছ থেকে ১টি সেলাই রেঞ্জ ও ১টি স্কু ড্রাইভার পাওয়া যায়। এসব যন্ত্রের মাধ্যমে তারা বাসার তালা ভেঙ্গে ফেলে।
    অপরদিকে মোস্তফা কামাল জানান, চোররা বাসায় প্রবেশ করে স্টীল আলমিরার তালা ভেঙ্গে ফেলে। এছাড়া বাসার গ্রিল ভেঙ্গে বের হওয়ার চেষ্টা করে।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর