বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০
logo
একদিন পূর্বে একপক্ষের সমিতি নির্বাচন বন্ধ
চাঁদপুর রেলওয়ে হর্কাস মার্কেট ব্যবসায় দুপক্ষের দ্বন্দ
প্রকাশ : ২৯ আগস্ট, ২০১৬ ০৯:১০:২২
প্রিন্টঅ-অ+
শরীফ চৌধুরী

চাঁদপুর: চাঁদপুর রেলওয়ে হকার্স মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন হয়নি ! রেলওয়ে হর্কাস মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি সংগঠনটি ছাড়াও এর অনেক আগে হকার্স সমাজ কল্যাণ সমিতি নামে একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠিত হয়। কিন্তু ওই সংগঠনটি থাকা সত্ত্বেও সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে বাদ দিয়ে ২৯আগস্ট সোমবার রেলওয়ে হকার্স মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি নিবার্চন করতে যাচ্ছিলো। পূর্বের সংগঠন হর্কাস সমাজ কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দকে সদস্য পদ থেকে বাদ দিয়ে নিবার্চনের তফসিল ঘোষনা করায় সমিতির নেতৃবৃন্দ জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও  জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ প্রেরণ করেন। তারিই প্রেক্ষিতে  জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক রজত শুভ্র সরকার স্বাক্ষরিত নিবার্চন বন্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জের কাছে একটি লিখিত চিঠি প্রেরণ করলে প্রশাসন নির্বাচন বন্ধ করে দেয়। অথচ ২৯আগস্ট সোমবার নির্বাচন কেন্দ্র করে গত ২০/২৫ দিন পূর্বে থেকে প্রার্থীদের বেনার-ফেস্টুন, পোস্টার-লিপলেটসহ ব্যাপক প্রচার-প্রচারনা করে আসছিল। হঠাৎ করে নির্বাচনের আগের দিন বিকেলে নির্বাচন বন্ধ করে দেয়ায় দু’পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।
        এ নিবার্চন বন্ধ করার জন্য তফসিল ঘোষনার পর হর্কাস সমাজ কল্যাণ সমাজ কল্যাণ সমিতির কয়েকজন সদস্য অভিযোগ করে বলেন, হকার্স মার্কেটের কিছু অসাধু ব্যবসায়ী তাদের নিজেদের স্বার্থ হাছিল করার জন্য একটি সংগঠন থাকাও সত্ত্বেও আরেকটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করে তারা তাদের নিজেদের খামখেয়ালী মতো তা পরিচালনা করছে। বিশেষ করে সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. জয়নাল আবেদীন তার নিজের মতো করে হাতেগনা কয়েকজনকে নিয়ে রেলওয়ে হর্কাস মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি পরিচালনা করে যাচ্ছেন। তাদের অভিযোগ বর্তমান নিবার্চনকে কেন্দ্র করে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় সভাপতি পদে আনোয়ার হোসাইন নির্বাচিত হন।কিন্তু নিবার্চন সম্পন্ন হওয়ার আগেই তার লোকজন তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে মার্কেটের সামনে বিশাল ব্যানার, পেস্টুন টাঙ্গিয়ে রেখেছেন। আনোয়ার হোসেন ৮বছর আগে সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তারপর তিনি উপদেষ্টা মন্ডলীর সভাপতি ছিলেন। এখন আবার কিসের স্বার্থে তিনি সভাপতির পদে দাড়িয়েছেন।
      এ ব্যাপারে চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ওয়ালী উল্ল্যাহ জানান, রেলওয়ে হর্কাস মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন বন্ধ করার জন্য জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে লিখিত চিঠি দেওয়া হয়েছে। তাই নির্বাচন না করার জন্য তাদের বলা হয়েছে। তিনি বলেন, হকার্স মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি রেজিস্ট্রেশন না হওয়া পযর্ন্ত নিবার্চন হবে না।  
         নিবার্চন বন্ধকরণ সংক্রান্ত অভিযোগ পত্রে যা উল্লেখ রয়েছে রেলওয়ে হর্কাস মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি ছাড়াও ১৯৮১সালে চাঁদপুর হর্কাস সমাজ কল্যাণ সমিতি নামে সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক নিবন্ধনকৃত একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রতিষ্ঠা হয়। যার রেজি নং-কুমি-৬৯৬/৮১ইং উক্ত সংগঠনটি স্বেচ্ছাসেবী (নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রন) অধ্যাদেশ ১৯৬১ অনুসারে নিন্ধনকৃত। সংস্থার অনুমোদিত গঠনতন্ত্রের ধারা ০২ এর (গ) অনুচ্ছেদ অনুসারে উক্ত মার্কেটের কার্য এলাকায় অনুরূপ কোন সমিতি, সংস্থা,ক্লাব,সংগঠন বা দল করা যাবে না মর্মে উল্লেখ রয়েছে। কিন্তু উক্ত বিধি উপেক্ষা করে অনুমোদন/ রেজিস্ট্রেশন বিহীন “ রেলওয়ে হকার্স মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি” নামে একটি সংগঠন কার্যক্রম পরিচালনা ও কমিটি নির্বাচনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে মর্মে সূত্রস্থ পত্রের মাধ্যমে জানা যায় । এতে উক্ত এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
 

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর