শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০
logo
চাঁদপুর-শরীয়তপুর হরিণা ফেরিঘাট এলাকায় মেঘনার ভয়াবহ ভাঙন
প্রকাশ : ২৫ মে, ২০১৬ ২০:১২:৫৪
প্রিন্টঅ-অ+
শরীফ চৌধুরী

চাঁদপুর: বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ এর প্রভাবের কারণে শুক্রবার থেকে মেঘনা নদীর ঢেউ ও বাতাসের তীব্রতা বাড়তে থাকে। এর ফলে চাঁদপুর সদর উপজেলার হানারচর ইউনিয়নের চাঁদপুর-শরীয়তপুর হরিণা ফেরিঘাটের দুই পাশের নদী পাড় ভাঙন শুরু হয়েছে। গত৪ দিন যাবত ভাঙনের ফলে ওই এলাকার বসত বাড়ি, দোকানপাট ক্রমেই মেঘনা গর্ভে তলিয়ে যাচ্ছে। মেঘনার ঢেউ এই অবস্থা বিরাজ করলে রাতের মধ্যেই তলিয়ে যাবে বহুবাড়িঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। হুমকির মুখে রয়েছে চাঁদপুর-শরীয়তপুর ফেরিঘাট। হরিণা ঘাটের ব্যবসায়ী বাচ্চু ও ওই গ্রামের সৈয়াল বাড়ীর আঃ মান্নান সৈয়াল জানান, গত ৪ দিন যাবৎ মেঘনার ঢেউ এর কারণে বসতবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভেঙে যাচ্ছে। ঘুর্ণিঝড়ের কারণে ঢেউ এর তীব্রতা আরো বেড়ে যাওয়ার কারণে ধীরে ধীরে পাড় ভেঙে মেঘনা তলিয়ে যাচ্ছে। রাতের বেলায় কোন বসত ঘর কিংবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অন্যত্রে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। আল্লাহ যদি রক্ষা করে। চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন হরিণা ফেরিঘাট এলাকা পরিদর্শন করে বলেন, ঘুর্ণিঝড়ের কারণে মেঘনা নদীর ঢেউ অতিরিক্ত বেড়েছে। এ কারণে হরিণাঘাটসহ আশাপাশের এলাকা মেঘনায় তলিয়ে যাচ্ছে। জরুরিভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীকে বলা হয়েছে। চাঁদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আতাউর রহমান বলেন, বাতাস আর ঢেউ এর কারণে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ভাঙন রোধে জরুরি ব্যবস্থা নেয়া হবে।
 

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর