শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০
logo
গণসচেতনতার অভাব
শহরে যত্রতত্র ময়লা আবর্জনা ফেলায় পরিবেশ বিপর্যয়
প্রকাশ : ০৯ এপ্রিল, ২০১৬ ১১:০১:৩৮
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: চাঁদপুর শহরে এখন ময়লা-আবর্জনা যত্রতত্র ফেলে পরিবেশ বিপর্যয় করা হচ্ছে। শহরের অধিকাংশ মানুষ অসচেতন হয়ে পড়েছে। চাঁদপুর পৌরসভা থেকে মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ বিপুল অর্থ ব্যয় করে শহরকে সুন্দর রাখতে ও পরিচ্ছন্ন রাখার জন্যে মূল সড়কের পাশে এমনকি পাড়া-মহল্লায় কাউন্সিলদের মাধ্যমে ডাস্টবিন তৈরি করে দিয়েছেন। তাছাড়া বর্তমানে চাঁদপুর ও অন্য জেলা থেকে ভাড়া করে আনা লোকজন দিয়ে শহরকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে ভোরে ও রাত ১০টার পর ঝাড়–দার দিয়ে শহরের রাস্তাঘাট পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করিয়ে থাকে। কিন্তু সকাল হলে দেখা যায়, যে ডাস্টবিনের ভেতর ময়লা-আবর্জনা না ফেলে তা বাইরে ফেলে রাখে। আর এ ময়লা আবর্জনা পচেগলে বিশ্রি গন্ধ ছড়াচ্ছে। সাধারণ মানুষ এসব সড়ক দিয়ে হাঁটাচলা করতে গিয়ে নাকে মুখে কাপড় কিংবা রুমাল চেপে ধরে চলতে হয়। এভাবে ময়লা আবর্জনা ফেলার কারণে দেশের প্রথম শ্রেণীর দাবিদার চাঁদপুর পৌর এলাকার পরিবেশ বিপর্যয় হচ্ছে। চাঁদপুর শহরকে একটি সুন্দর শহর ও বসবাসযোগ্য হিসেবে গড়ে তুলতে পরিবেশ বিপর্যয় না ঘটিয়ে পরিচ্ছন্ন পরিবেশ তৈরি করা আমাদের সবার প্রয়োজন। তবে পৌরসভার পরিচ্ছন্ন কর্মীরা সকালে যে কাজ করার কথা তা সঠিক সময়ে না করে বিলম্বে করে থাকে। তারা গাড়িযোগে ময়লা আবর্জনা এনে শহরের ছায়াবাণী এলাকার বড় ডাস্টবিনের ভেতরে না ফেলে বাইরে ফেলছে। এতে করে এ এলাকার পরিবেশ একেবারেই বিপর্যস্ত। তাছাড়া পালবাজার এলাকার পোস্ট অফিসের বিপরীতে, থানায় প্রবেশর সম্মুখে প্রেসক্লাব সড়ক, পৌর ঈদগাহ সংলগ্ন ব্রিজের নিচে, জেলা প্রশাসক কার্যারয় পূর্ব গেইট, পালপাড়া, আলিমপাড়া, নাজির পাড়া, প্রফেসর পাড়া, আদালত পাড়া, নতুনবাজারসহ বিভিন্ন স্থানে দেখা যায় ডাস্টবিনের বাইরে ও রাস্তাঘাটে বাসা-বাড়ি থেকে ময়লা আবর্জনা ফেলে রাখা হচ্ছে রাস্তার উপর। শহরবাসী চায় সুন্দর ও বাসযোগ্য একটি পরিবেশ।
 

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর