রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০
logo
চাঁদপুরে এডুকেশন ওয়াচ প্রতিবেদন অবহিতকরণ সেমিনারে জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল
দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে এ প্রতিবেদন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে
প্রকাশ : ০৬ এপ্রিল, ২০১৬ ১১:০৭:২৪
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: চাঁদপুরে এডুকেশন ওয়াচ প্রতিবেদন-২০১৫ অবহিতকরণ সেমিনার ৫ এপ্রিল মঙ্গলবার সকালে শহরের কাজী নজরুল ইসলাম সড়কস্থ রোটারী ভবন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি ও গণসাক্ষরতা অভিযানের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকার দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষার উন্নতির গতিবৃদ্ধি এবং দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে এডুকেশন ওয়াচের প্রতিবেদন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এ প্রতিবেদনে আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার বিভিন্ন সমস্যা ও সমাধানের বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। এ প্রতিবেদন তৈরির জন্য বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি ও গণসাক্ষরতা অভিযানের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানাই।
উন্মুক্ত আলোচনায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের শিক্ষার মান উন্নত করতে হলে প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নত করতে হবে। তবেই শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নত হবে। বাংলাদেশে প্রাথমিক শিক্ষকরা সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিদ্যালয়ে থাকতে হয়। এক সময় শিক্ষকদের চাহিদা ছিলো না। বর্তমানে শিক্ষকরা কি পাচ্ছে। প্রাথমিক শিক্ষকদের সকল কাজে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু তাদের মূল্যায়ন করা হয় না। চাঁদপুরের ৩টি উপজেলায় ৩০টির মতো চর রয়েছে। এসব চরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। কিন্তু শিক্ষকরা যথাসময়ে ওইসব বিদ্যালয়ে আসেন না। এমনকি সপ্তাহে ক্লাশে আসেন না। এতে করে প্রাথমিক শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা শিক্ষা অর্জন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। স্বাধীনতার ৪৫ বছর অতিবাহিত হলেও প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থার নীতিমালা তৈরি হয়নি। তারা আরো বলেন, মায়েরা সচেতন হলেই শিক্ষার্থীরা শিক্ষিত হবে। কিন্তু দেখা যায়, মায়েরা পাশের কক্ষে বসে স্টার জলসা মুভিস দেখছেন। আর সন্তানদের বলছে পড়তে। সে সন্তান কিভাবে শিক্ষা অর্জন করবে। তাই শিক্ষকদের পাশাপাশি অভিভাবকদেরকেও সচেতন হতে হবে।
প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপর গভেষণার প্রেক্ষাপট, ফলাফল ও সুপারিশমালা উপস্থাপন করেন গণসাক্ষরতা অভিযানের উপ-পরিচালক কেএম এনামুল হক। বাংলাদেশ প্রথমিক শিক্ষক সমিতি কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি সরদার আবুল বাসারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মাধ্যমিক শিক্ষা কুমিল্লা অঞ্চলের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ হোসেন, স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক ওয়াহিদুজ্জামান, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চৌদ্দগ্রাম সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর রনজিত কুমার বণিক। উন্মুক্ত আলোচনা পর্বে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি বিএম হান্নান, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদী, সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া জীবন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, চৌমুহনী সরকারি এমএইচ কলেজের সহযোগী অধ্যাপক আবদুর রহমান, আজিমিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা খোদেজা বেগম লাকী, মাতৃপীঠ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার সাহা, মতলব দক্ষিণ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও দীঘলদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন সুলতানা, ফরিদগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষখ সমিতির সাধারণ সম্পাদক গিয়াস কবির চৌধুরী, চাঁদপুর সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ফারুক চৌধুরী, বিষ্ণুদী সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ জসীম উদ্দিন, গুয়াখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা হাসিনা পান্না, হাজীগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আবু বকর, লেখক ও কবি এসএম জয়নাল আবেদীন, মুক্তিযোদ্ধা এসএম সালাহ উদ্দিন, ব্যাংকার রনজিত রায় প্রমুখ। এ সময় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষক ও সাংবাদিকবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
 

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর