বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯
logo
দুই কলেজছাত্রীকে মারধর: মূল সন্দেহভাজন আটক
প্রকাশ : ২৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:৪০:০৬
প্রিন্টঅ-অ+
রাজধানী ওয়েব

ঢাকা: উত্ত‌্যক্ত করার পর প্রতিবাদ করায় ঢাকার মিরপুরে বিসিআইসি কলেজের ছাত্রী দুই বোনকে মারধরের ঘটনায় ‘মূল সন্দেহভাজন’ জীবন করিম ওরফে বাবুকে আটক করেছে র‌্যাব।
র‌্যাব-৪ এ দায়িত্বরত সহকারী পুলিশ সুপার মো. সাজেদুল ইসলাম জানান, রোববার সন্ধ্যার ৭টার দিকে মিরপুরের শাহ আলী থানাধীন বেড়িবাঁধ এলাকা থেকে জীবনকে আটক করা হয়।
সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে এ ব্যাপারে বিস্তারিত তথ‌্য প্রকাশ করা হবে বলে জানান তিনি।
গত ১৯ অক্টোবর মিরপুরে চিড়িয়াখানা সড়কে বিসিআইসি কলেজের ওই দুই ছাত্রী বখাটেদের মারধরের শিকার হন। খবর পেয়ে কলেজের শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করে।
কলেজের অধ্যাপক ইমাদুল হক সেদিন জানান, হামলার শিকার দুই ছাত্রী জমজ দুই বোন। তারা মানবিক প্রথম বর্ষের ছাত্রী। পূর্ব মনিপুর এলাকায় তাদের বাসা; বাবা সরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন।
“বেলা ১১টায় কলেজ ছুটির পর তারা বাসায় ফেরার জন্য রাস্তায় বাসের অপেক্ষায় ছিল। ওই সময় জীবন ও লুৎফর নামের দুই যুবক তাদেরকে উদ্দেশ্য করে আপত্তিকর কথা বলে। ছাত্রীরা প্রতিবাদ করলে তারা মারধরের শিকার হয়।”
ওই ঘটনার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে চিড়িয়াখানা এলাকা থেকে লুৎফর রহমান বাবু নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
দুই ছাত্রীর বাবা শাহ আলী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন, সেখানে জীবন করিম বাবুর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও চার-পাঁচজনকে আসামি করা হয়।
শাহ আলী থানার এসআই অনুজ কুমার সরকার সে সময় জানিয়েছিলেন, লুৎফর রহমান বাবু এ মামলার প্রধান আসামি জীবনের বন্ধু ও সহযোগী।
“বিসিআইসি কলেজের সামনে ফুটপাতে জীবনের বিরিয়ানির দোকান আছে। তারা কয়েকজন মিলে ওই ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করেছিল বলে লুৎফর পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।”
 

রাজধানী এর আরো খবর