মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০
logo
ঢামেকে অ্যাম্বুলেন্সের চাপায় নিহত বেড়ে ৪
প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:৪৭:৪৩
প্রিন্টঅ-অ+
রাজধানী ওয়েব

ঢাকা: ঢাকা মেডিকেলে প্রবেশের সময় নিয়ন্ত্রণ হারানো অ্যাম্বুলেন্সের নিচে চাপা পড়ে নারী-শিশুসহ চারজন নিহত হয়েছেন। বাঁচানো যায়নি অন্তঃসত্ত্বা মায়ের গর্ভে থাকা শিশুটিকেও। এই ঘটনায় নারী-শিশুসহ আহত হয়েছেন আরো তিনজন।
শনিবার সকাল ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
পরে উত্তেজিত জনতা চালককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।
এদিকে হাসপাতাল পরিদর্শন করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
জানা গেছে, ক'দিন আগেই গাছ থেকে পড়ে মাথায় আঘাত পায় সাত বছরের ছোট্ট সাকিব। মায়ের হাত ধরে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরতে হলো মা-ছেলে দু'জনকেই।
শনিবার সকালে একটি অ্যাম্বুলেন্স ঢাকা মেডিকেলের ভেতরে ঢোকার সময় নিয়ন্ত্রণ হারালে এর নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান দুজন। এ ছাড়া শিশু সন্তান সজীবকে নিয়ে গুরুতর আহত হন ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক নারী।
পরে সন্ধ্যার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান অন্তঃসত্ত্বা ওই নারী। এর আগে তার গর্ভের সন্তানটিও মারা যায়। ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো তিনজন।
আহত একজন জানান, রিকশা থেকে নেমে গেটের সামনে দাঁড়িয়ে ভাড়া দিচ্ছিলেন এমন সময় গাড়িটি এসে চাপা দেয়।
হাসপাতাল পরিদর্শনে এসে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মো. নাসিম দুর্ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেন।
মন্ত্রী বলেন, ড্রাইভার পুরো দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে। তাকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।
এদিকে ঢামেকের পরিপালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মিজানুর রহমান বলেন, আমি পুলিশকে বলেছি, কঠোরতম ব্যবস্থা নিতে এবং কাউকে যেনো ছাড় দেয়া না হয়।
এদিকে অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ আহত দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।
শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবু বকর সিদ্দিক বলেন, মূলত গাড়িটি ড্রাইভার চালাইনি। এটি হেল্পার চালাচ্ছিলো। আমরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। আসলেতো সে ড্রাইভার না। ফলে রিকশাটি সামনে আসলে ব্রেকে পা দেয়ার পরিবর্তে সে পা দিয়েছে এক্সেলেটারে। এতে দ্রুত তাদের ওপর উঠে গেছে।
জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

রাজধানী এর আরো খবর