বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯
logo
টরন্টোতে ভালোবাসায় সিক্ত লিয়ার লেভিন
প্রকাশ : ২০ ডিসেম্বর, ২০১৬ ১৭:০৪:০০
প্রিন্টঅ-অ+
প্রবাস ওয়েব
টরন্টো: টরন্টো ফিল্ম ফোরামের আয়োজনে বাংলাদেশের ৪৫তম বিজয় দিবস উপলক্ষে মার্কিন চলচ্চিত্র নির্মাতা লিয়ার লেভিন এর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে কানাডার টরন্টো'তে বসবাসকারী বাংলাদেশিরা মুক্তিযুদ্ধের এই মহান বন্ধুকে তাদের হৃদয় থেকে ভালোবাসা জানান।

গত রবিবার টরন্টোর ৯ ডজ রোডের রয়েল কানাডিয়ান লিজিয়ন হলে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপচে পড়া দর্শকদের উপস্থিতিতে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময়ের এক চেতনার পরিবেশ সৃষ্টি হয়।

দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধের সময়ে ধারণকৃত তিনটি প্রামাণ্য চলচ্চিত্র এস শুকদেবের "নাইন মান্থস টু ফ্রিডম", জহির রায়হানের "স্টপ জেনোসাইড" এবং তারেক মাসুদ ও ক্যাথরিন মাসুদের "মুক্তির গান" চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়।

এছাড়া টরন্টো ফিল্ম ফোরামের সভাপতি এনায়েত করিম বাবুল সম্পাদিত মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন চলচ্চিত্র ও কর্মকান্ডের একটি প্রামাণ্যচিত্র দেখানো হয়। এসব প্রামাণ্যচিত্রের প্রদর্শনীতে মুক্তিযুদ্ধের সময়ের পাকিস্তানী বর্বর বাহিনীর ঘৃণ্য কর্মকাণ্ড দর্শকদের সামনে ফুটে ওঠার সাথে সাথে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের বিদেশি বন্ধু ও বাংলার মাটির মুক্তিকামী সন্তানদের দেশ স্বাধীনের দৃঢ় প্রত্যয় ফুটে ওঠে।

চলচ্চিত্র প্রদর্শন ছাড়াও টরন্টো ফিল্ম ফোরামের এই আয়োজনে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ছেলে-মেয়েদের চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার প্রদান করা হয়। কানাডায় জন্ম ও বেড়ে উঠা নতুন প্রজন্মের বাংলাদেশিরা লিয়ার লেভিনের কাছ থেকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে খোলামেলা আলোচনা করে। লিয়ার লেভিন নতুন প্রজন্মের বাংলাদেশিদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন যাতে উপস্থিত সকলে একজন বিদেশির কাছ থেকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের একটি চিত্র পায়।

প্রসঙ্গত, লিয়ার লেভিন ১৯৭১ সালে তার দল নিয়ে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী ও মুক্তাঞ্চলে গিয়ে যুদ্ধের ভয়াবহতা ও মুক্তিকামী বাংলাদেশিদের কর্মকাণ্ডের দুর্লভ প্রামাণ্যচিত্র ধারণ করেন এবং "জয় বাংলা" নামে একটি প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ করেন। পরবর্তীতে তারেক মাসুদ ও ক্যাথরিন মাসুদ তার ধারণকৃত ফুটেজ থেকে "মুক্তির গান" প্রামাণ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন।

এই অনুষ্ঠানে লিয়ার লেভিনের হাতে টরন্টো ফিল্ম ফোরাম এর পক্ষ থেকে সম্মাননা তুলে দেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে বসবাসরত প্রখ্যাত বিজ্ঞানী ও মুক্তিযুদ্ধের সময়ের কাদেরীয়া বাহিনীর সেকন্ড-ইন-কমান্ড ড. নুরণ নবী। সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে টরন্টো ও মন্ট্রিয়ল থেকে আগত সম্মানিত মুক্তিযোদ্ধারা অংশ নেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে লিয়ার লেভিনের সহধর্মিনী র‌্যাকুয়েল লেভিন উপস্থিত ছিলেন। টরন্টোবাসীর ভালোবাসায় সিক্ত লিয়ার লেভিন সবার প্রতি তার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে আবেগ আপ্লুত হয়ে বলেন, যত দিন যাবে বাংলাদেশ পৃথিবীর বুকে তত বেশি একটি সুন্দর দেশ হিসেবে তার স্থান করে নিবে। তিনি উল্লেখ করেন, ১৯৭১ সালে তিনি বাংলার সাধারণ মানুষের মধ্যে যে দেশ প্রেম দেখেছেন, তা খুবই কম দেশের মানুষের মধ্য দেখতে পাওয়া যায়। তিনি আরও বলেন, বাংলার মানুষের সাথে সবসময় তিনি এক আত্মিক বন্ধন অনুভব করেন।

লিয়ার লেভিনের সংবধনা শেষে তিনি টরন্টো ফিল্ম ফোরাম প্রকাশিত 'লেন্স টু ফ্রিডম' ম্যাগাজিনের মোড়ক উম্মোচন করেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে টরন্টোর স্থানীয় শিল্পীরা একটি মনোজ্ঞ নাচ, গান ও কবিতার অনুষ্ঠান উপস্থাপন করেন। বিভিন্ন পর্বের এই অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন টরন্টো ফিল্ম ফোরাম এর কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য সোলাইমান তালুত রবিন, সাধারণ সম্পাদক মনিস রফিক ও সহ সভাপতি আহমেদ হোসেন। মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ের ৪৫তম বার্ষিকীর এই অনুষ্ঠানের সার্বিক পরিকল্পনায় ছিলেন ফোরাম এর সহ সভাপতি আমিনুল ইসলাম খোকন।
 

প্রবাস এর আরো খবর