শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯
logo
শোকের শক্তিতে রুখো সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ'
চট্টগ্রামে শোক দিবসে ৪০ কিমি দীর্ঘ মানবপ্রাচীর
প্রকাশ : ১৫ আগস্ট, ২০১৬ ২০:০৫:৫০
প্রিন্টঅ-অ+
চট্টলা ওয়েব

চট্টগ্রাম: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪১তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) ‘শোকের শক্তিতে রুখো সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ’ শীর্ষক শ্লোগানে ৪০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে মানবপ্রাচীর কর্মসূচির আয়োজন করে। সোমাবার সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মত বৃহত্তম এ মানবপ্রাচীর অনুষ্ঠিত হয়।
মানবপ্রাচীরটি নগরীর শাহ আমানত ব্রিজ বশিরুজ্জামান চত্বর থেকে শুরু হয়ে বহদ্দারহাট-মুরাদপুর-সিডিএ এভিনিউ-শেখ মুজিব রোড-এম এ আজিজ রোড হয়ে কাটগড় কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ পর্যন্ত, দেওয়ানহাট থেকে অলংকার পর্যন্ত, ষোলশহর ২নং গেইট থেকে বায়েজিদ বোস্তামী রোড হয়ে অক্সিজেন এবং বহদ্দারহাট থেকে কাপ্তাই পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। কর্মসূচিতে সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ডা. মো. আফছারুল আমীন, সংসদ সদস্য এম এ লতিফ ও স্থানীয় কাউন্সিলরগণ নির্ধারিত স্থানে মানবপ্রাচীরে নেতৃত্ব দেন। অনুষ্ঠানে স্থানীয় জনতা, চসিক পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, চসিকের ৮ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী অংশগ্রহণ করেন।  চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বিভিন্ন মোড়ে অংশগ্রহণকারীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে টাইগার পাস এলাকায় গিয়ে কর্মসূচির সমাপনী ঘোষণা করেন।
সমাপনী বক্তব্যে আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, চট্টগ্রাম শান্তির পীঠস্থান। এই চট্টগ্রামে জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের কোনো স্থান নেই। অনাদিকাল ধরে এ অঞ্চলে ধর্ম-বর্ণ-সম্প্রদায়-দল-মত নির্বিশেষে সকলে মিলেমিশে শান্তিতে সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে স্ব স্ব ধর্ম-কর্ম পালন করে যাচ্ছে। তাই সকল অশুভ শক্তি আমাদের সবার ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসে নস্যাৎ করব।
চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন
চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নগরীর জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার শঙ্কর রঞ্জন সাহা, সিএমপি কমিশনার ইকবাল বাহার, জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আবদুল জলিল প্রমুখ।
চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব ও সিইউজে
চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে)’র যৌথ উদ্যোগে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, সাড়ে এগারটায় বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন, দুপুরে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন হযরত শাহ আনিস (রহ.) জামে মসজিদের খতিব মাওলানা হাফেজ মো. জামাল উদ্দিন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ার, সাধারণ সম্পাদক মহসিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহসভাপতি শহীদ উল আলম, যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, নির্বাহী সদস্য আসিফ সিরাজ, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি আলী আব্বাস, সাংবাদিক কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির চেয়ারম্যান মইনুদ্দীন কাদেরী শওকত, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমানসহ সাংবাদিক সংগঠনসমূহের নেতৃবৃন্দ।
চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ
চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত শোক দিবস অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদ প্রশাসক এম.এ সালাম। উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দীপক রঞ্জন অধিকারী, সচিব শাব্বির ইকবাল, সহকারী প্রকৌশলী মো. আনিসুর রহমান, প্রকৌশলী রথীন্দ্রনাথ সেনসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা কর্মসূচি পালিত হয়। এর মধ্যে ছিল শোক র‌্যালি, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন, আলোচনা সভা। সকাল ৮টায় চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে শোক র‌্যালি বের করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধু  চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন উপাচার্যসহ অন্যান্যারা। এরপর সকাল ৯টায় বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কীর্তি নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। উপাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার, ডিনস কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. মো. সেকান্দর চৌধুরী, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এফ এম আওরঙ্গজেব ও সাধারণ সম্পাদক সুকান্ত ভট্টাচার্য, সিনেট সদস্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. ফরিদ উদ্দিন আহামেদ, রেজিস্ট্রর (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কামরুল হুদা, আলাওল হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সফিউল আলম প্রমুখ।
 

২য় রাজধানী এর আরো খবর